Amrela বানানের জন্য ভাইরাল ভারতীয় ছাত্রীর আত্মহত্যার খবরটি ভুয়া

International Partly False

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে একটি গ্রাফিক্স শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, Umbrella শব্দের ভুল বানানের জন্য ভাইরাল ভারতীয় ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। পোস্টের তিনটি ছবির একটি কোলাজ রয়েছে যার মধ্যে দুটিতে মাস্ক পরিহিত একজন মেয়েকে দেখা যাচ্ছে এবং একটি একটি স্ট্রেচারে শুয়ে থাকা একোটি মৃতদেহ রয়েছে। 

পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “নেটিজেনদের ট্রলের শিকার umbrella বানানকে amrela বলা ভারতীয় শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা।” 

তথ্য যাচাই করে আমরা জানতে পারি পোস্টের দাবি ভুয়া ও বিভ্রান্তিকর। Umbrella শব্দের ভুল বানানের জন্য ভাইরাল ভারতীয় ছাত্রীর আত্মহত্যার খবরটি ভুয়া, তিনি সুস্থ আছেন।  

ফেসবুক পোস্ট আর্কাইভ 

প্রসঙ্গত, গত ১০ জুন প্রতিবেশী দেশ ভার‍তের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের উচ্চ মাধ্যমিকের (ক্লাস ১২) ফল প্রকাশিত হয়। ফল প্রকাশের যারা সফল হতে পারেননি তাদের মধ্যে অনেকেই রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় প্রতিবাদ মিছিল করে বা ধর্নায় বসে। এমনই একটি প্রতিবাদ মিছিলের ভিডিও ভাইরাল হয়। পশ্চিমবঙ্গের নদীয়া জেলার বিরনগর শিবকালি উচ্চ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় নামে একটি স্কুলের ছাত্রীরাও ইংরেজি বিষয়ে পাশ করানোর দাবিতে রাস্তায় বসে প্রতিবাদ করে। একজন সাংবাদিক ধর্নায় বসে থাকা ছাত্রীদের মধ্যে একজন ছাত্রীকে ‘Umbrella’ ইংরেজি শব্দের বানান বলতে বললে ওই ছাত্রী ভুল বানান বলেন। তিনি ‘Amrela’ বলেন। এরপর এই ভিডিও ভারত সহ বাংলাদেশেও ভাইরাল হয়ে যায়। দাবি করা হচ্ছে এই মেয়েটিই আত্মহত্যা করেছেন। 

তথ্য যাচাই 

এই দাবির সত্যতা যাচাই করতে আমরা ফেসবুকে এবং ইউটিউবে প্রাসঙ্গিক কি ওয়ার্ড সার্চ করি। ফলাফলে, ‘HPR News Bangla’ নামে একটি ইউটিউবে চ্যানেলে ভাইরাল হওয়া ভিডিওর দীর্ঘ সংস্করণ খুঁজে। HPR News Bangla হল নদীয়া জেলার একটি স্থানীয় সংবাদমাধ্যম। এই উপস্থাপনা থেকে জানতে পারি পরীক্ষায় সফল না হওয়ায় নদীয়ার বীরনগর শিবকালী উচ্চ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা প্রতিবাদ শুরু করেছেন। ভিডিওর শুরুতে সাংবাদিক তার নাম বলেন মনোজিত সরকার। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভিডিওর বানান বিভ্রান্তির অংশটুকুই ভাইরাল হয়েছে কিন্তু আসল রিপোর্টটি ১৫ মিনিটের যেখানে শিক্ষার্থীরা তাদের দাবি এবং পরিস্থিতির বিষয়ে বলছেন। 

ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো HPR News Bangla-এর সাংবাদিক মনোজিত সরকারের সাথে যোগাযোগ করে। তিনি আমাদের মেয়েটির নাম বলেন। শিক্ষার্থীর গোপনীয়তা এবং সুরক্ষার বিষয় মাথায় রেখে আমরা তার নাম প্রকাশ করছিনা। মনোজিত আমাদের জানান, “মেয়েটি নদীয়ার বীরনগর শিবকালী উচ্চ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রী। ওই ছাত্রীকে আমি চিনি এবং সে আত্মহত্যা করেনি এই বিষয়ে আমি একদম নিশ্চিত।”

ভাইরাল পোস্টের লাশের ছবিটি কার বা কোথাকার? 

এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে ছবিটিকে গুগল রিভার্স ইমেজ সার্চ করি। ফলাফলে, ভারতীয় সংবাদমাধ্যম কলকাতা নিউজ-এর ইউটিউব চ্যানেলে এই ছবি কেন্দ্রিক একটি ভিডিও খুঁজে পাই। ২০২২ সালের ১৯ জুন তারিখে আপলোড করা এই ভিডিও থেকে জানতে পারি, পরীক্ষায় সফল না হওয়ায় রাজ্যের মালদা নামে একটি জেলার একজন শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেন। ওই ছাত্রীর নাম শম্পা হালদার। পরীক্ষায় আসফল হওয়ার পর প্রতিবাদ করা সত্ত্বেও কোনও সুরাহা না হওয়ায় আত্মহননের পথ বেছে নেন। শম্পা আর এন রায় বালিকা বিদ্যালয়ের  ছাত্রী ছিলেন। উচ্চ মাধ্যমিক মাধ্যমিক পরিক্ষায় ফেল করার জেরেই আত্মহত্যা করেছে বলে জানিয়েছে মৃতার পরিবার। 

তথ্য ও প্রমানের ভিত্তিতে স্পষ্ট হয়ে যায় উচ্চ মাধ্যমিকে সফল না হওয়ায় মালদা জেলার আত্মঘাতী ছাত্রীর ছবিকে Umbrella শব্দের ভুল বানানের জন্য ভাইরাল ছাত্রী বলে ভুয়া দাবি করা হচ্ছে।

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল ও ভিত্তিহীন। Umbrella শব্দের ভুল বানানের জন্য ভাইরাল ভারতীয় ছাত্রীর আত্মহত্যার খবরটি ভুয়া, তিনি সুস্থ আছেন।

Avatar

Title:Amrela বানানের জন্য ভাইরাল ভারতীয় ছাত্রীর আত্মহত্যার খবরটি ভুয়া

Fact Check By: Rahul A 

Result: Partly False

Leave a Reply

Your email address will not be published.