ভারতের একটি ভিডিওকে পুলিশের সাথে পরীমনির নাচ বলে ভুয়া দাবি করা হচ্ছে

False Social

বাংলাদেশের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সঠিক খবর মানুষের কাছে গুরুত্বপূর্ণ না হলেও ভুয়ো খবর ছড়ানোয় বঙ্গবাসীর জুড়ি মেলা ভার। আর সেই খবর যদি কোনও বিতর্কিত চরিত্র নিয়ে হয় তবে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। সম্প্রতি ফেসবুকে ফের পরীমনিকে নিয়ে ভুয়ো খবর ভাইরাল হল। একটি প্রতিবেদন শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, পরীমনি এবং পুলিশ এসআই-এর নাচের ভিডিও ভাইরাল হল। এই প্রতিবেদনের শিরোনামে লেখা রয়েছে, “আবারো পরিমণী ও এস আই এর নাচের ভিডিও ভাইরাল,নেট দুনিয়া ভাইরাল।“ লিঙ্কের থাম্বনেলে দেখা যাচ্ছে আলো আধারি একটি ঘরে একজন পুরুষ এবং একজন মহিলা নাচের ভঙ্গিতে দাড়িয়ে রয়েছে। দাবি, ওই মহিলা হলে বাংলাদেশী তারকা পরীমনি। 

তথ্য যাচাই করে আমরা দেখতে পেয়েছি এই দাবি ভিত্তিহীন এবং বানোয়াট। ভারতের ঝাড়খন্ডের একজন পুলিশ আধিকারিকের যৌনকর্মীর সাথে নাচের ভিডিওকে পরীমনির সাথে যুক্ত করে ভুয়া পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে।

download - 2021-09-08T123224.068.png
ফেসবুকফেসবুকফেসবুক আর্কাইভ

প্রসঙ্গত, একাধিক বিয়ে, তাঁর নামে পর্ন ভিডিও ইত্যাদি নিয়ে বরাবরইর বিতর্কে জড়িয়ে থাকেন পরীমনি। তার বাড়ি থেকে উদ্ধার ৩০টিরও বেশি বিদেশি মদের বোতল ও এলএসডি নেশা করার জন্য ব্লটিং কাগত ও কিছু মাদক। ৪ অগস্ট তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ এবং ১ সেপ্টেম্বর তার জামিন হয়। 

তথ্য যাচাই

এই দাবির সত্যতা যাচাই করতে প্রথমে প্রতিবেদনটি পড়ি। দেখতে পাই, শিরোনামের সাথে মূল খবরের (আর্কাইভ) কোনও মিলই নেই। এরপর থাম্বনেলকে রিভার্স ইমেজ সার্চ করি। ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম ‘সংবাদ প্রতিদিন’-এর ২০১৯ সালের ২ জুলাই তারিখের একটি প্রতিবেদনে এর অনুসন্ধান পাওয়া যায়। এটি ভারতের ঝাড়খণ্ড রাজ্যের কুলটি থানার ঘটনা। একজন যৌনকর্মীর সাথে ওসি নন্দকিশোর সিংহ-এর নাচে ভিডিও ভাইরাল হয়। এরপর তাকে চাকরি থেকে সাসপেন্ড করা হয়। 

download - 2021-09-08T130425.712.png
প্রতিবেদনআর্কাইভ

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম ‘জি নিউজ’-এর প্রতিবেদনেও একই খবর দেখতে পাই। আরেকটি ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম ‘এশিয়ানেট নিউজ বাংলা’-এর একটি খবরে এই ঘটনার ভিডিওটি পাওয়া যায় যেখানে দেখা যায় হিন্দি ভাষার গানে দুজন নাচছেন। এই প্রতিবেদনে যাওয়ার আগে উল্লেখ্য, এই ভিডিওটি শুধুমাত্র প্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য। 

download - 2021-09-08T131218.855.png

প্রতিবেদন

নিচে একটি তুলনামূলক ছবি দেওয়া হল।

download - 2021-09-08T132032.556.png

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিসেন্ডো সিদ্ধান্তে এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল ও ভিত্তিহীন। ভারতের ঝাড়খন্ডের একজন পুলিশ আধিকারিকের মহিলার সাথে নাচের ভিডিওকে পরীমনির সাথে যুক্ত করে ভুয়া পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে।

Avatar

Title:ভারতের একটি ভিডিওকে পুলিশের সাথে পরীমনির নাচ বলে ভুয়া দাবি করা হচ্ছে

Fact Check By: Rahul A 

Result: False

Leave a Reply

Your email address will not be published.