রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নদী পার হওয়ার ভিডিওকে সিলেটের বন্যা পরিস্থিতির দৃশ্য দাবি করে ভুয়া পোস্ট শেয়ার

False Social

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে একটি ছবি শেয়ার করে সেটিকে বাংলাদেশের সিলেটের বন্যার দৃশ্য বলে দাবি করা হচ্ছে। পোস্টের ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে শিশু সহ অনেকগুলি পুরুষ মহিলা জলের মধ্য দিয়ে ক্রমশ এগিয়ে চলেছে। 

পোস্টের ক্যাপশনে লেখা রয়েছে “সিলেটে ধনী-গরিব সবার ঘরেই এখন বন্যার পানি। পার্থক্য হলো গরিবরা বড় অসহায়।”    

তথ্য যাচাই করে আমরা জানতে পারি পোস্টের দাবি ভুয়া ও বিভ্রান্তিকর। ২০১৭ সালে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নদী পেরিয়ে বাংলাদেশ পালিয়ে আসার ভিডিওকে সম্প্রতি সিলেটের বন্যার ভিডিও দাবি করে ভুয়া পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে।   

ফেসবুক পোস্ট 

তথ্য যাচাই 

এই দাবির সত্যতা যাচায় করতে আমরা ভিডিওটিকে ইনভিড টুলের মাধ্যমে কিফ্রেমে ভাগ করে গুগল রিভার্স ইমেজ সার্চ করতেই খুব সহজেই ভাইরাল ভিডিওর আসল উৎস খুঁজে পাই। আন্তর্জাতিক সংবাদসংস্থা ‘অ্যাসোসিয়েট প্রেস’-এর ইউটিউব চ্যানেলে এই একই ভিডিওটি ২০১৭ সালের ১০ সেপ্টেম্বর তারিখে আপলোড করা হয়েছে যার শীর্ষকে লেখা রয়েছে, “রোহিঙ্গা শরণার্থীনদী পেরিয়ে বাংলাদেশে আসছে রোহিঙ্গা শরণার্থীরা।”

’ভয়েস অফ আমেরিকা’র ইউটিউব চ্যানেলেও এই ভিডিওকে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জলে পারাপার হওয়ার দৃশ্য বলে দাবি করা হয়েছে। 

২০১৭ সালে মায়ানমারের রাখাইন অঞ্চলে বসবাসকারীরা সেনাবাহিনীদের অত্যাচার থেকে রক্ষা পেতে তারা মায়ানমার সীমান্তের নাফ নদী পেরিয়ে বাংলাদেশের টেকনাফ অঞ্চলে পালিয়ে আসে। 

তথ্য ও প্রমানের ভিত্তিতে প্রমানিত হয় রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নাফ নদী সাতরে, নৌকায় বাংলাদেশ পালিয়ে আসার ভিডিওকে সিলেটের বন্যা পরিস্থিতি দাবি করে ভুয়া পোস্ট শেয়ার করা হচ্ছে।  

নিষ্কর্ষঃ তথ্য যাচাই করে ফ্যাক্ট ক্রিস্যান্ডো সিদ্ধান্তে  এসেছে উপরোক্ত দাবিটি ভুল ও ভিত্তিহীন। ২০১৭ সালে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নদী পেরিয়ে বাংলাদেশ পালিয়ে আসার ভিডিওকে সিলেটের বন্যার ভিডিও দাবি করে ভুয়া পোস্ট ভাইরাল করা হচ্ছে।

Avatar

Title:রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নদী পার হওয়ার ভিডিওকে সিলেটের বন্যা পরিস্থিতির দৃশ্য দাবি করে ভুয়া পোস্ট শেয়ার

Fact Check By: Nasim A 

Result: False

Leave a Reply

Your email address will not be published.